রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৩১ পূর্বাহ্ন
Title :
লঞ্চের ধাক্কায় সদরঘাটে পাঁচ জনের মৃত্যু > ৭১বার্তা কুড়িগ্রাম জেলা বাসিকে ঈদুল ফিতরের  শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জেলা প ,প কর্মকর্তা > ৭১বার্তা কুড়িগ্রামে বিদেশি মদসহ কুখ্যাত মাদক কারবারি গ্রেফতার> ৭১বার্তা কুড়িগ্রাম বাসিকে ঈদুল ফিতরের  শুভেচ্ছা> ৭১বার্তা কুড়িগ্রামে দুস্থ অসহায়দের ভিজিএফ এর চাল বিতরণ > ৭১বার্তা ফুলবাড়ীতে কৃষকদের মাঝে আউশ ফসলের বীজ ও সার বিতরণ > ৭১বার্তা কৃষকের মুখে হাসির ঝিলিকঃ সুন্দরগঞ্জে চরাঞ্চলবাসি রবি ফসলেই স্বাবলম্বী> ৭১বার্তা কুড়িগ্রামে বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস পালিত> ৭১বার্তা পীরগঞ্জে দেহব্যবসার অভিযোগে খদ্দের সহ গ্রেফতার ১২> ৭১বার্তা ভূরুঙ্গামাড়িতে ফেনসিডিলসহ মাদক কারবারীকে গ্রেফতার> ৭১বার্তা

জনগণ সরকার কে স্বস্তিতে থাকতে দেবে না,বললেন জিএম কাদের- ৭১বার্তা

মোস্তাফিজার বাবলু
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ১ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ৪৭ বার পঠিত

 

বৃহস্পতিবার দুপুরে রংপুরের পল্লী নিবাসে জাতীয় পার্টি থেকে নির্বাচিত ১১ জন সংসদ সদস্যকে নিয়ে দলের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের কবর জিয়ারত শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

জিএম কাদের বলেন, জিনিসপত্রের দাম লাগামহীনভাবে বাড়ছে। যার জন্য সরকারের কোনো ব্যবস্থাই কাজ করছে না। আমরা প্রথম দিন থেকেই সেটা বলে আসছি। নিত্যপণ্যের মূল্য সহনীয় করতে না পারলে সামনের দিকে দেশের মানুষ সরকারকে সুখে থাকতে নাও দিতে পারে।

বিরোধী দলীয় এই নেতা বলেন, দেশের সার্বিক অবস্থা সকলেই অবগত আছেন। এই মুহূর্তে রাজনৈতিক অস্থিরতা চোখে পড়ছে না। তবে, ভেতরে ভেতরে একটা অস্থিরতা তো অবশ্যই আছে। স্বাভাবিকভাবে আমরা যেটা বুঝতে পারছি, সেটা হলো দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি অত্যন্ত খারাপ।

বিরোধী দল হিসেবে জাতীয় পার্টির মাঠে কোনো কর্মসূচি থাকবে কি না- জানতে চাইলে জিএম কাদের বলেন, যখন সময় আসবে, তখন দেখবেন।

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির ধস হয়নি জানিয়ে তিনি বলেন, আমরা ৩৫ বছর ধরে ক্ষমতার বাইরে। ২০০১ সালে ৩০০ আসনে সর্বশেষ আমরা নির্বাচন করেছি। তখন কেয়ারটেকার সরকারের আমলে একটা মোটামুটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচন হয়েছে। সেই নির্বাচনে আমরা ১৪টি আসন পেয়েছিলাম। এবার আমরা ১১টি আসন পেয়েছি দীর্ঘ ৩৫ বছর ক্ষমতার বাইরে থাকার পরেও। জাতীয় পার্টির যে খুব বেশি ধস হয়েছে, এটা আমি মনে করি না।

জিএম কাদের বলেন, এই নির্বাচনটাও প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে। আমি সবসময় এই নির্বাচনের অনিয়মগুলো তুলে ধরেছি। নির্বাচনের প্রস্তুতি গ্রহণের সময় থেকে শুরু করে ভোটগ্রহণের দিন পর্যন্ত আমি সব অনিয়মের ব্যাপারে কথা বলেছি। যেটা পরবর্তীকালে সঠিক হয়েছে।

সংসদের প্রথম অধিবেশনের প্রথম দিন দেওয়া বক্তব্যের বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের যে সমালোচনা করেছেন- তা নিয়েও কথা বলেন জিএম কাদের।

জাপা চেয়ারম্যান বলেন, আমি ঠিক জানি না অসন্তোষ বলতে কী বোঝায়। আমরা স্পিকারের কাছে আমাদের কী কী প্রত্যাশা তা বলেছি এবং যুক্তি দিয়ে বলেছি। তারপরও অনেকে বলছে রেওয়াজ ছিল না। রেওয়াজ তো মানুষই তৈরি করে। রেওয়াজ তো কোনো আইন নয়। তাছাড়া নতুন রেওয়াজ তৈরির জন্য তো মানুষই ভাঙে। আইন থাকলে কোনো সময় আইনও পরিবর্তন করা যায়। আসলে কেন অসন্তুষ্ট হলেন, আমার জানা নেই। সংসদের বক্তব্য নিয়ে যারা অসস্তুষ্ট হয়েছেন, তারা হয়তো আমার বক্তব্যটা ভালোভাবে বুঝতে পারেননি।

এ সময় জাতীয় পার্টির মহাসচিব ও বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ মুজিবুল হক চুন্নুসহ নির্বাচিত সংসদ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো কিছু জনপ্রিয় সংবাদ
© All rights reserved © 2023 71barta.com
Design & Development BY Hostitbd.Com