বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:২৯ পূর্বাহ্ন
Title :
কুড়িগ্রামে বিভিন্ন স্থানে বৃষ্টির জন্য সালাতুল ইসতিসকার নামাজ ও দোয়া অনুষ্ঠিত>৭১বার্তা বেরোবির একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস্ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান উমর ফারুক> ৭১বার্তা কুড়িগ্রামে আবিষ্কৃত টেলিস্কোপ দেখতে মানুষের ভিড়> ৭১বার্তা লিবিয়াতে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালিত> ৭১বার্তা কুড়িগ্রামে পুকুরে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু> ৭১বার্তা ফুলবাড়ীতে অবহিতকরণ কর্মশালা> ৭১বার্তা চিলমারীর ব্রহ্মপুত্রের তীরে অষ্টমী স্নানে লাখো হিন্দু সম্প্রদায়ের ঢল > ৭১বার্তা বাস-পিকআপে সংঘর্ষে ফরিদপুরে ১১জন নিহত> ৭১বার্তা লিবিয়াতে বৈশাখী উৎসব পালিত > ৭১বার্তা লঞ্চের ধাক্কায় সদরঘাটে পাঁচ জনের মৃত্যু > ৭১বার্তা

সরকার সিন্ডিকেটের নিকট জিম্মি… জিএম কাদের> ৭১বার্তা

মোস্তাফিজার বাবলু
  • আপডেট সময় : সোমবার, ১১ মার্চ, ২০২৪
  • ৬৪ বার পঠিত

 

আজ সোমবার বিকেলে রংপুর সার্কিট হাউজে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন জাপা চেয়ারম্যান জিএম কাদের।

এসময় তিনি আরও বলেন, দেশের বেশির ভাগ দ্রব্য আমদানি নির্ভর। আমদানির যে সক্ষমতা তা দেশের অনেক ব্যবসায়ীর মধ্যেই নেই। যাদের বৈধ-অবৈধ টাকা আছে, তারাই আমদানির সুযোগটা নিচ্ছে। আর এই সুযোগটা নিচ্ছে কয়েকজন ব্যবসায়ী। সেই সাথে বাইরে থেকে যারা আমদানির সাথে জড়িত তারা সবাই প্রায় সরকারের নীতি নির্ধারণী পর্যায়ের, এভাবেই সিন্ডিকেট তৈরী হয়েছে।

কাদের বলেন, বর্তমানে দেশের মানুষ ভালো নাই। দ্রব্যমূলের ঊর্ধ্বগতিতে মানুষের নাভিশ্বাস। সরকার চাইলেই এখন পণ্যের দাম কমাতে, বাড়াতে পারবে না। বাজার নিয়ন্ত্রণে সরকার ব্যর্থ। কেননা,ব্যবসায়ীদের মধ্যে যে প্রতিযোগিতা থাকা দরকার, সেই প্রতিযোগিতা নেই। এই প্রতিযোগিতা না থাকলে বাজার নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব না।

সম্প্রতি রওশন এরশাদের কাউন্সিল প্রসঙ্গে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় নেতা জিএম কাদের বলেন, যারা এসব করছে, তারা বেশিরভাগই জাতীয় পার্টির কেউ না। এছাড়াও এসব আইনি কোনো কাঠামোর মধ্যে থেকে হচ্ছে না। এসব বেআইনি।

তিনি আরও বলেন, যারা জাতীয় পার্টির নামে বেআইনি কিছু করছে, তাদের হলভাড়া ও অনুষ্ঠান করার অনুমতি দিয়ে সরকার তাদের কিছুটা পৃষ্ঠপোষকতা করছে। বেআইনি কাজে পৃষ্ঠপোষকতা বন্ধ না হলে দেশে স্বাভাবিক রাজনীতি বাধাগ্রস্থ হবে। আর এতে দেশ ও জাতি ক্ষতিগ্রস্থ হবে।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে ইউরিপীয়ান ইউনিয়নের বিবৃতি প্রসঙ্গে জিএম কাদের বলেন, সংসদের সমাপনী ভাষণে আমি বলেছি, নির্বাচন আইনগতভাবে হয়েছে, তবে, নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক হয়নি। সেই সাথে নির্বাচনে জনগণের চাওয়া পাওয়া প্রতিফলিত হয়নি। নির্বাচনটা ফ্রি স্টাইলে হয়েছে। ৩ ধরনের নির্বাচন হয়েছে। কোথাও পূর্ব নির্ধারিত ছিলো, আবার কোথাও  সরকারের ইচ্ছের প্রতিফলনে হয়েছে। সবমিলিয়ে বলা যায়, নির্বাচনটা অংশগ্রহণমূলক হয়নি।

উপজেলা নির্বাচন প্রসঙ্গে জিএম কাদের বলেন, রংপুরে জাতীয় পার্টির অবস্থা ভালো। দেশের অন্যান্য স্থানে সেই তুলনায় কম। তবে, জাতীয় পার্টি উপজেলা নির্বাচনে অংশ নিবে। জাতীয় পার্টি এখন পর্যন্ত সব ধরনের নির্বাচনে অংশ নিয়েছে। নির্বাচনে অংশ নিয়ে নির্বাচনের সমস্যাগুলো জানতে পারছে এবং জাতির সামনে তুলে ধরতে পারছে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো কিছু জনপ্রিয় সংবাদ
© All rights reserved © 2023 71barta.com
Design & Development BY Hostitbd.Com